আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের দুর্গ নিয়ে চিন্তায় মমতা ব্যানার্জি.

প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে প্রতিটি রাজনৈতিক দল। শুরু হয়ে গেছে ঘরোয়া বৈঠক, বুথভিত্তিক পর্যালোচনার কাজ। সামনের বছরই লোকসভা নির্বাচন।তার দু’বছর পরই রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন।সব কাআজ ঠিক আছে কিনা দেখতে গিয়ে খোদ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আসন ভবানীপুর নিয়েই চিন্তায় আছে তৃণমূল কংগ্রেস। কলকাতা দক্ষিণ লোকসভার অন্তর্গত ভবানীপুরের বিধায়ক মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বাস।এছারা তৃণমূলের একাধিক তাবড় নেতারও বাস এই এলাকাতেই। কিন্তু, ২০১৪ সালের পর থেকে এখানেই বেড়েছে BJP-র দোরাত্ত।মমতা ব্যানার্জি মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পরই তাঁর লোকসভা কেন্দ্র কলকাতা দক্ষিণে উপনির্বাচন হয়। তৃণমূলের তরফে প্রার্থী হন সুব্রত বক্সি। CPI(M)-এর হয়ে লড়াই করেন ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়। জয়ী হন সুব্রত বক্সি ২০১১।লোকসভা নির্বাচন ২০১৪। দেশজুড়ে তখন বিজেপির হাওয়া।  দক্ষিণ কলকাতা লোকসভা কেন্দ্রে প্রার্থী ছিল ১৪ জন। জয়ী হন সুব্রত বক্সিই।২০২১ সালে রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন।ভবানীপুর আসনটি নিয়েই চিন্তায়। এখানে অবাঙালি, হিন্দিভাষী ভোটার দের বাস, দলের মধ্যেই খাওয়াখায়ি লেগেই আছে, জুট ঝামেলা বেরেই চলেছে।চন্দ্র বসু বললেন “মমতা ব্যানার্জি বড় নেত্রী। তিনি অনেক পরিণত। কিন্তু, সরকারে এসে তাঁর যা করা উচিত ছিল তা তিনি করেননি। উলটে কয়েকটা গুন্ডা পুষে রেখেছেন। মানুষ ভালোভাবে নিচ্ছে না। আমার চেষ্টা থাকবে মানুষের কাছে পৌঁছে তাঁদের পাশে দাঁড়ানো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com